ঘাতক রাকিব-নিহত তানজিলা

তানজিলা হত্যা: ২ দিনেও গ্রেফতার হয়নি ঘাতক রাকিব!

ভোলার চরফ্যাশনে শিক্ষার্থী তানজিলা মৃত্যুর দুই দিন পার হলেও এখনো কোন আসামি গ্রেফতার না হওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে তানজিলার পরিবার। পুলিশ বলছে ঘাতক রাকিবকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে। কিন্তু পরিবারের দাবি পুলিশ সময় ক্ষেপন করছে। ফলে ঘাতক পালিয়ে যেতে পারে।

উল্লেখ্য শনিবার(১১জুলাই) বেলা দুইটায় প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় চরফ্যাশন উপজেলার চরমাদ্রাজ ইউনিয়নের কেরামতগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী তানজিলা(১৩) কে অপহরণ করে বখাটে রাকিব(২৪)। সে চরমাদ্রাজ ইউনিয়নের চরআফজাল ২নং ওয়ার্ডের আব্দুল কুদ্দুস (অরল কুদ্দুস)  এর ছেলে। অপহরণ করে মোটরসাইকেলযোগে নিয়ে যাওয়ার সময় পথিমধ্যে মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়লে গুরুতরভাবে আহত হয় তানজিলা। পরে তাকে উপজেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।অবস্থার অবনতি হলে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে ভোলায় মৃত্যুবরণ করে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হলেও এখনো পর্যন্ত কোনো আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

 স্থানীয় সূত্রে জানা যায় ঘাতক রাকিব দীর্ঘদিন যাবত এলাকায় বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে আসছে। ইতিপূর্বে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী ও নারীর শ্লীলতাহানীর অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। তার বেপরোয়া কর্মকাণ্ডের কারণে কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পায়না। স্থানীয় কিছু উগ্র রাজনৈতিক গোষ্ঠীর সাথে তার যোগসাজস রয়েছে বলে জানা যায়।

 নিহত শিক্ষার্থীর বাবা আনোয়ার হোসেন মিয়াজী জানান, বেশ কয়েকদিন যাবৎ তানজিলাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল রাকিব। স্কুল ও প্রাইভেটে আসা যাওয়ার সময় পরিবারের সদস্যরা সাথে করে নিয়ে আসতেন। কিন্ত ঘটনার দিন একা বের হলে এই সুযোগে রাকিব তানজিলাকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে মোটরসাইকেলে তুলে নেয়। এসময় দ্রুতগতিতে এলাকা ত্যাগ করার সময় চরফ্যাশন পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ড এলাকায় মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনায় পড়ে। এতে তানজিলা গুরুতর আহত হলে অবস্থা খারাপ দেখে ঘাতক রাকিব তাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চরফ্যাশন সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল প্রেরণ করেন। পথিমধ্যে ভোলা পৌঁছালে তানজিলা মৃত্যুবরণ করে।

 ঘটনার পর চরফ্যাশন থানায় তানজিলার বাবা বাদী হয়ে অপহরণ ও হত্যা মামলা দায়ের করেন। কিন্তু ঘটনার ২ দিন অতিবাহিত হলেও এখনো পর্যন্ত পুলিশ রাকিব ও তার সহযোগীদের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। ঘাতক গ্রেফতার না হওয়ায় তানজিলার বাবা উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

 এদিকে  অপহরণ ও মর্মান্তিক  হত্যাকান্ডে উদ্বিগ্ন এলাকাবাসী। তানজিলার জানাজায় উপস্থিত হয়ে এলাকার দল-মত নির্বিশেষে সকল মানুষ বখাটে রাকিবের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে।

পাঠকের মন্তব্য