পরাজয় অনিবার্য জেনে নির্বাচন ভন্ডুল করেছে সরকার

প্রেসটাইম২৪: পরাজয় নিশ্চিত জেনে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে যোগসাজশ করে সরকার ঢাকা উত্তর সিটির নির্বাচন ভণ্ডুল করেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ (শুক্রবার) সকালে শেরেবাংলা নগরে সাবেক প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তাঁর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের আগে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ অভিযোগ করেন। বিএনপি মহাসচিব বলেন, মির্জা ফখরুল আরো বলেন, নতুন ইউনিয়নগুলোকে সিটিতে আনা হয়েছে, কিন্তু তার সীমানা নির্ধারণ করা হয়নি; ভোটার তালিকা নিশ্চিত করা হয়নি। এতেই প্রমাণিত হয়, নির্বাচন কমিশন যোগ্য নয়। ফলে নির্বাচন স্থগিত হয়েছে। এটি নির্বাচন কমিশনের সম্পূর্ণ ব্যর্থতা।

তিনি বলেন, আইন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব এই কাজগুলো করার, কিন্তু তারা করেনি। সরকার যেহেতু খুব ভালো করে জানে, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হলে তাদের পরাজয় অবশ্যম্ভাবী ছিল, সেটাকে এড়িয়ে যাওয়ার জন্যই যোগসাজশ করে তারা নির্বাচন ভণ্ডুল করেছে।
বিএনপির নেতার কারণে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচন স্থগিত হয়েছে- আওয়ামী লীগের এ বক্তব্যের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে মির্জা ফখরুল বলেন, এটা মূলত তাদের অপরাধ এড়িয়ে যাওয়ার বক্তব্য। কে করেছে, এটা তো বড় কথা নয়। মামলা কেন হয়েছে এবং নির্বাচন কেন স্থগিত হলো। কারণ ঢাকা সিটি করপোরেশনে নতুন যে ইউনিয়নগুলো নিয়ে আসা হয়েছে, সেগুলোর সীমানা নির্ধারণ করা হয়নি। ভোটার তালিকা নিশ্চিত করা হয়নি। যার ফলে ডিএনসিসি নির্বাচন স্থগিত হয়েছে।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মুক্ত রেখে, সব দলকে সুযোগ দিয়ে নির্বাচন না করলে নির্বাচন হবে না বলেও মন্তব্য করেন ফখরুল।

এদিকে, জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন দলটির চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া।

শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে বেগম খালেদা জিয়া মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়ে মোনাজাত করেন। এ সময় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, রুহুল কবির রিজভী আহমেদসহ দলটির সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
সূত্র:পার্সটুডে