ডিএসইতে কমেছে লেনদেন

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার দিনশেষে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) কমেছে বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের দর।

এ দিন মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে সূচকে। অপরদিকে দেশের অন্য শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে সূচক ও লেনদেনে চাঙাভাব লক্ষ করা গেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, রোববার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ১২ পয়েন্ট বেড়ে চার হাজার ৯৩৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক দুই পয়েন্ট কমে এক হাজার ১৬৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে এবং ডিএস৩০ সূচক দুই পয়েন্ট কমে এক হাজার ৮০৩ পয়েন্টে এসে দাঁড়িয়েছে।

ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৯৭৫ কোটি এক লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিট। যা গত কার্যদিবসের চেয়ে ৪৮ কোটি তিন লাখ টাকা কম। গত বৃহস্পতিবার লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ২৩ কোটি পাঁচ লাখ টাকা।

ডিএসইতে মোট ৩২৪টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ১৪৬টির, কমেছে ১৩৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৩টির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের দর।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স ৪৯ পয়েন্ট বেড়ে নয় হাজার ২১২ পয়েন্টে অবস্থান করছে। এ ছাড়া সিএসই৫০ সূচক শূন্য দশমিক পাঁচ পয়েন্ট কমে এক হাজার ১০৮ পয়েন্টে, সিএসই৩০ সূচক ৬৩ পয়েন্ট বেড়ে ১৩ হাজার ৪৫০ পয়েন্টে, সিএএসপিআই ৭৩ পয়েন্ট বেড়ে ১৫ হাজার ১৭৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। সিএসআই শরিয়াহ সূচক শূন্য দশমিক এক পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৫৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

সিএসইতে টাকার অঙ্কে লেনদেন হয়েছে ৫৪ কোটি টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিট। এ দিন সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৫৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিটের। এর মধ্যে বেড়েছে ১২৭টির, কমেছে ১০১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের দর।