বিএনপিকে বাদ দিলে ঐক্যফ্রন্টের পেছনে কোন জনগন থাকবে না: মাহবুবউল আলম হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেনে, সব রাজনৈতিক দলের আন্দোলন করার অধিকার আছে। তবে কথা হচ্ছে আন্দোলনটা করবে কারা বিএনপি নাকি ঐক্যফ্রন্ট। তিনি বলেন, বিএনপিকে বাদ দিলে ঐক্যফ্রন্টের পেছনে কোন জনগন থাকবে না। জনবিচ্ছিন্ন ব্যক্তিরা বিএনপির সাথে ঐক্যফ্রন্ট গড়েছে। বিএনপির শক্তিই তাদের মুল শক্তি।

বুধবার দুপুরে কুষ্টিয়ার নিজ বাসভবনে দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে মতবিনিময় শেষে “সংলাপ ব্যর্থ হলে আন্দোলন” ঐক্যফ্রন্টের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে হানিফ এসব কথা বলেন।

হানিফ আরো বলেন, বিএনপি গত পাঁচ বছর ধরে তো বহু আন্দোলন করেছে। বেগম জিয়া যখন আন্দোলন করেছেন তখন তিনি বলেছেন এবার না ঈদের পরে আন্দোলন হবে। ঈদের পর ঈদ আসে কিন্তু আন্দোলন আর হয়নি। সুতরাং এদেশে দূর্ণীতির দায়ে আদালতের রায়ে দন্ডপ্রাপ্ত আসামির জন্য কেউ আন্দোলন করবে না।

তফসিল পেছানোর সুযোগ আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে হানিফ বলেন,সংবিধানের নির্দেশনা অনুযায়ী তফসিল এবং নির্বাচন কোনোটায় পেছানোর সুযোগ নেই। ২০১৯ সালের ২৬ শে জানুয়ারী সংসদের মেয়াদ শেষ হবে। সংবিধান অনুযায়ী সংসদের মেয়াদ শেষ হওয়ার পুর্ববর্তী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন সম্পন্ন হবে।

এ সময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান, যুগ্ম সাধারন সম্পাপদক প্রকৌশলী ফারুক হোসেন, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি তাইজাল আলী খান, সাধারন সম্পাদক আতাউর রহমান আতাসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রেসটাইম২৪/ইএফ