ভারত-বাংলাদেশ আলোচনা ফলপ্রসু হয়েছে: ঢাকায় রাজনাথ সিং

ঢাকায় ভারত ও বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের ষষ্ঠ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ (রোববার) সকাল সাড়ে ১০টায় শুরু হওয়া স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এ বৈঠকে আঞ্চলিক নিরাপত্তা, সীমান্ত ব্যবস্থাপনা, অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড দমনে সহযোগিতা এবং ভ্রমণ সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা হয়।

বৈঠকে নয় সদস্যের ভারতীয় প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। আর বাংলাদেশের ১৫ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। পুলিশ প্রধান, কোস্টগার্ড প্রধান, র‌্যাব প্রধান, ডিএমপি কমিশনারসহ বিভিন্ন আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার শীর্ষ কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন এ বৈঠকে।

দু’দেশের কর্মকর্তাদের মাঝে আসাদুজ্জামান খান ও রাজনাথ সিং

দুই ঘণ্টাব্যাপী বৈঠক শেষে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং জানান, বৈঠকে সীমান্তসহ অন্যান্য আলোচনা হয়েছে। আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে। ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে কোনো সমস্যা নেই বলে তিনি দাবি করেন।

দুই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের সর্বশেষ বৈঠকটি হয়েছিল ২০১৬ সালের জুলাইয়ে নয়া দিল্লিতে। ওই বৈঠকে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের নানা দিক পর্যালোচনার পাশাপাশি সম্পর্ক আরও জোরদারে করণীয় সম্পর্কে আলোচনা হয়েছিল।

বৈঠকে আসাদুজ্জামান খান ও রাজনাথ সিং

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রোববার সকালে সচিবালয়ে পৌঁছালে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রাঙ্গণে পুলিশের একটি চৌকস দল রাজনাথ সিংকে ‘গার্ড অব অনার’ প্রদান করে।

এর আগে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করেন। এ সময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। এ সময় জাদুঘরের বিভিন্ন কক্ষ ঘুরে দেখেন রাজনাথ সিং। এরপর তিনি বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে রাখা পরিদর্শন বইয়ে সই করেন।

শেখ হাসিনার সঙ্গে রাজনাথ সিংয়ের সাক্ষাৎ

বঙ্গবন্ধু জাদুঘর থেকে এরপর ঢাকেশ্বরী মন্দিরে যান ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। সেখানে তিনি প্রার্থনায় অংশ নেন।

১৩ জুলাই (শুক্রবার) তিনদিনের সরকারি সফরে ঢাকায় পৌঁছান রাজনাথ সিং। বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আমন্ত্রণে ঢাকায় এসেছেন তিনি। শনিবার সকালে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।