খুলনা সিটি নির্বাচনে অনিয়ম ও সহিংসতায় হতাশা যুক্তরাষ্ট্র

খুলনার ভোটের অনিয়ম তদন্তের তাগিদ

খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অনিয়ম ও সহিংসতার খবরে হতাশা প্রকাশ করেছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট। তিনি এসব অনিয়ম ও সহিংসতার ঘটনা তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন।

গতকাল বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে রাষ্ট্রদূত এ অভিমত প্রকাশ করেন। যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক সহায়তা সংস্থা ইউএসএআইডির প্রশাসক মার্ক গ্রিনের সাথে তিনি মন্ত্রণালয়ে এসেছিলেন। মার্ক গ্রিন পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হকের সাথে সাক্ষাত করেন।

বার্নিকাট বলেন, নির্বাচনে সব দল অংশ নিয়েছে, এটা খুশির বিষয়। তবে অনিয়ম, ভয় দেখানো এবং সহিংসতার খবরে আমরা হতাশ হয়েছি। আমরা চাই এসব ঘটনার স্বচ্ছ ও পূর্ণ তদন্ত হোক, যাতে ভবিষ্যতে এর পুনরাবৃত্তি না ঘটে।

গত মঙ্গলবার খুলনা সিটি কর্পোরেশনে দলীয় প্রতীকে প্রথমবারের মত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেক মেয়র পদে বিজয়ী হন। নির্বাচনে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে অনিয়মের বিষয়টির প্রতি নিউ ইয়র্কে জাতিসঙ্ঘ সদর দফতরে নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে বিশ্বসংস্থার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন বাংলাদেশের এক সাংবাদিক। জবাবে জাতিসঙ্ঘ মহাসচিবের উপ-মুখপাত্র ফরহান বলেন, বাংলাদেশের সব রাজনৈতিক দল ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের প্রতি সম্মান দেখানো জন্য জাতিসঙ্ঘ আহ্বান জানিয়ে আসছে।