ভারতে কোটাবিরোধী আন্দোলনে আহত ১২

চাকরিতে কোটা নিয়ে উত্তাল বাংলাদেশ। দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ছড়িয়ে পড়া ওই আন্দোলনে পুলিশসহ বহু শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। এদিকে প্রতিবেশী ভারতেও শিক্ষা ও চাকরিতে বর্ণভিত্তিক কোটা ব্যবস্থা বাতিলের দাবিতে ১০ এপ্রিল ভারত বন্ধের কর্মসূচি দিয়েছে আন্দোলনকারীরা।

আজ যে নির্ধারিত ভারত বন্ধ ছিল সেখানে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে কমপক্ষে ১২ জন আহত হয়েছেন।

আন্দোলনকারীদের নতুন ভারত বন্ধ ঘোষণার পর কেন্দ্রীয় সরকার সব রাজ্য সরকারকে সতর্ক অবস্থায় থাকার নির্দেশ দিয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কোনো এলাকায় সহিংসতা হলে সেই এলাকার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ সুপারদের এর দায় নিতে হবে।

এদিকে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে যাতে কোনো গুজব না ছড়ানো সম্ভব হয় সেদিকে নজর রাখতে বলা হয়েছে রাজ্য সরকারগুলোকে।

এর আগে ভারতের বিহার, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থানে কোটাবিরোধী আন্দোলনের ডাক দেয় কয়েকটি গোষ্ঠী। বিহারের পাটনা, বেগুসারি, লক্ষিসড়াই, মুজাফফরপুর, ভোজপুর, শেখপুরা ও দরভাঙ্গা জেলায় সড়ক, রেলপথ ও স্থানীয় বাজার বন্ধ ছিল।

অন্যদিকে আন্দোলনকে ঘিরে উত্তর প্রদেশের সাহারানপুর, মুজাফফারনগর, শামলি এবং হাপুনে ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। মুজাফফারনগরে স্কুলগুলো বন্ধ রাখার নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে।