ক্রিকেটার সামির বিরুদ্ধে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগ স্ত্রীর

প্রেমটাইম২৪: ত্রীর বরাত দিয়ে একাধিক বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক থাকার অভিযোগ গণমাধ্যমে এসেছে ভারতীয় ক্রিকেটার মুহম্মদ সামির বিরুদ্ধে।কিন্তু সামি বলছেন, তার বিরুদ্ধে ওঠা এসব অভিযোগ মিথ্যা। তার ক্রিকেট ক্যারিয়ার নষ্ট করার জন্যে চক্রান্ত করে তাকে ফাঁসানো হয়েছে।

মুহাম্মদ সামির স্ত্রী নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে তার স্বামীর একাধিক বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক থাকার অভিযোগ তুলে ধরেনন। প্রমাণ হিসেবে দেন হোয়াটসঅ্যাপ এবং ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে বিভিন্ন সঙ্গীনির সঙ্গে সামির কথোপকথনের একাধিক স্ক্রিনশটও। তারপর থেকেই চাঞ্চল্য ছড়ায় গোটা মিডিয়া জুড়ে।

অবশেষে সমস্ত বিতর্কে পানি ঢেলে মুখ খুললেন সামি। ২৯ বছর বয়সী এ পেসার সব অভিযোগ অস্বীকার করে টুইটারে লিখেছেন, ‘আমাদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে যেসব অভিযোগ করা হয়েছে, তা একেবারেই মিথ্যা, বানোয়াট। এটা আমাদের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র।’

ভারতীয় টেস্ট ক্রিকেট দলের স্ট্রাইক বোলার সামি দেওধর ট্রফি খেলার জন্যে গতকাল পর্যন্ত ধর্মশালায় ছিলেন। ভারতের সদ্য সমাপ্ত দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে জোহানেসবার্গে দেশের জয় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিলেন সামি। স্বামীর বিরুদ্ধে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগে গতকালই সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হন সামি-পত্নী হাসিনা জাহান।

আপাতত, সমস্ত অভিযোগ নস্যাৎ করে নিজের ফেসবুক পোস্টে এই স্ট্যাটাস আপডেট দিয়েছেন সামি।

এর আগে ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ত্রী হাসিন জাহানের সাথে তোলা একটি ছবি শেয়ার করে ভক্তদের ক্ষোভের মুখে পড়েন মোহাম্মাদ সামি।

ছবিতে হাসিন ‘হিজাব না পরে’ মেরুন রঙের স্লিভলেস পোশাকে থাকায় সামিকে আজেবাজে মন্তব্য ও তার সম্পর্কে বাজে সমালোচনায় লিপ্ত হয় ফেসবুক ব্যবহারকারী ভারতীয় মুসলিমরা!

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ডেক্কান ক্রনিক্যাল খবরে জানায়, ছবিটি পোস্টের পর থেকেই শুরু হয় শামি নিয়ে সমালোচনা।

একজন লিখেছেন, ‘আপনার স্ত্রী আদৌ মুসলিম কিনা, সন্দেহ জাগে। এখনো সময় আছে, আল্লাকে ভয় পান।’

আরেকজন লিখেছেন, ‘শামি, আপনি নিজে মুসলমান। আপনি খুব ভালভাবে জানেন, বাড়ির নারীদের কীভাবে রাখা উচিত। এসব আপনাকে শোভা দেয় না।’

অপর একজন লিখেছেন, ‘স্ত্রীকে এমন পোশাকে সোশ্যাল মিডিয়ায় হাজির করতে আপনার লজ্জা করল না। এ ব্যাপারে আপনার বরং পাঠান ভাইদের মতো সিনিয়রদের কাছ থেকে শিক্ষা নেয়া উচিত।’

এমন আরও শত শত মন্তব্য জমা হয় ওই পোস্টে। ওই সব মন্তব্যের বেশিরভাগেই ‘স্ত্রীর কী ধরনের পোশাক পরা উচিত’ তা নিয়ে ভারতীয় পেসারকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। শামি এমন আক্রমণের শিকার হওয়ায় তার পাশে দাঁড়িয়েছেন অনেকেই। এই ‘অনেকের’ মধ্যে ক্রিকেটাররা যেমন রয়েছেন, তেমনি রয়েছেন সাধারণ অনেক মানুষও।

এ ব্যাপারে মোহাম্মদ কাইফ তার টুইটার অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, ‘মন্তব্যগুলো আসলেই লজ্জাজনক। সম্পূর্ণভাবে মুহাম্মদ সামিকে সমর্থন করছি। দেশে সমালোচনা করার মতো আরও বড় বড় বিষয় রয়েছে।’ কাইফের টুইটে ভারতীয় ব্যাডমিন্টন তারকা জ্বালা গুপ্তা লিখেছেন, ‘নির্বোধ-নির্লজ্জের দল কোথাকার!