চিরবিদায় জানানো হল শ্রীদেবীকে

আজ বিকেল ৩টায় শেষকৃত্যের মাধ্যমে চিরবিদায় জানানো হল শ্রীদেবীকে। শ্রীদেবীর অকালপ্রয়াণ বিস্মিত করেছে বলিউড তারকাদের। কারণ, বড় কোনো রোগে ভুগছিলেন না তিনি। তবে দৃশ্যত বড় কোনো রোগে না ভুগলেও টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে প্রকাশ, প্রায়ই জ্বরে ভুগতেন শ্রীদেবী। এ ছাড়া মোহিত মারওয়ার বিয়েতে যাওয়ার আগে কিছুটা অসুস্থও বোধ করেছেন তিনি।

শ্রীদেবীর স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধু বলেন, ‘শ্রীদেবী প্রায়ই জ্বরে ভুগতেন। এ ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিকও নিতেন তিনি। মোহিত মারওয়ার বিয়েতে যাওয়ার আগে তিনি কিছুটা ক্লান্ত বোধ করছিলেন। কিন্তু বিয়েতে যাওয়ার আগ্রহ ছিল তাঁর। তাই ক্লান্ত অবস্থাতেই দুবাইয়ের উদ্দেশে রওনা হন শ্রীদেবী।’

আজ বিকেল ৩টায় ভিলে পার্লের শ্মশানে চিরবিদায় জানানো হল নায়িকাকে। ১৯৭৫ সালে ১৩ বছর বয়সে ‘জুলি’ সিনেমার মধ্য দিয়ে ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ শ্রীদেবীর। এরপর চাঁদনি, নাগিনা, সাদমা, জানবাজ, কারমা, মিস্টার ইন্ডিয়াসহ অসংখ্য সিনেমায় তিনি অভিনয় করেন। নায়িকা হিসেবে গড়ে তোলেন এক অনন্য কীর্তি। ১৯৮৩ সালে মুক্তি পাওয়া ‘সাদমা’ বলিউডে তাঁকে স্বতন্ত্র স্থান দেয়। সমালোচকদের মতে, শ্রীদেবী অভিনীত ‘লামহে’ ভারতীয় সিনেমার ১০০ বছরের ইতিহাসে সেরা ১০টি রোমান্টিক ছবির মধ্যে অন্যতম।

শ্রীদেবীর প্রকৃত নাম শ্রী আম্মা ইয়ানগার আয়াপান হলেও চলচ্চিত্র দুনিয়ায় শ্রীদেবী নামেই পরিচিতি পান তিনি। যদিও তাঁর অভিনয় জীবনের শুরুটা হয়েছিল শিশুশিল্পী হিসেবে। তামিল, তেলেগু, মালায়ালাম ছাড়াও বলিউডের বিভিন্ন ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। ২০১৭ সালে মুক্তি পায় শ্রীদেবী অভিনীত সর্বশেষ চলচ্চিত্র ‘মম’। ২০১৩ সালে পদ্মশ্রী পদকে ভূষিত হন এই অভিনেত্রী।